Skip navigation

অনেক আনন্দ আর বেদনার মধ্য দিয়ে শেষ হল ১৪১৮ বঙ্গাব্দ। শুরু হল আরেকটি বছর ১৪১৯ বঙ্গাব্দ। চৈত্র-সংক্রান্তির মাধ্যমে শেষ হল বসন্তের আর আগমন হল ঝড়ো বৈশাখের। বৈশাখের ঝড় অবশ্য কয়েকদিন আগেই শুরু হয়ে গিয়েছে। এই বসন্তের প্রস্থান আর বৈশাখের আগমনের সাথে বিদায় নিল ১৪১৮। ঠাই করে নিল স্মৃতির পাতায় আর মহাকালের স্রোতে।

বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে বাঙ্গালীরা বরন করে নিল বাংলা বছর ১৪১৯ কে। সকাল বেলায় মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে শুরু হয় নববর্ষকে বরন করা। এই পর পান্তা ইলিশের সাথে গান-বাজনা আর বৈশাখী মেলা দিয়ে চলতে থাকে নববর্ষ বরন। নতুন বছরকে বরন করা উপলক্ষে আগের রাতে রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউ তে শুরু হয় সবচেয়ে বড় হাতে আকা আল্পনা। মানিক মিয়া এভিনিউ পরিনত হয় শিল্পীর ক্যানভাস এ।

নববর্ষ বরণ নিয়ে অনেকে অনেক কিছুই বলেছেন। কিন্তু আমার মনে হয় ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এটাই বাঙ্গালীর একমাত্র উপলক্ষ যেখানে সবাই একই উদ্দেশ্যে হাজির হয়। আর তা হল বর্ষবরণ। ঈদ, পূজা, বড়দিন বা পূর্ণিমা এগুলো আমাদের বড় উৎসব হলেও এগুলো শুধুমাত্র একটি নির্দিষ্ট ধর্মের মানুষের জন্য। অন্য ধর্মের আনুসারীরা বাসায় বসে ঘুমায়। কিন্তু পহেলা বৈশাখ হল এমন এমন একটি উৎসব যেখানে সব ধর্মের মানুষ সমানভাব উজ্জাপন করতে পারে। শুধু এই একটা উৎসব সবাইকে একই কাতারে নিয়ে আসে আর মনে করিয়ে দেয় ‘আমরা সবাই একই জাতি। আমরা বাঙ্গালী’।

এই উৎসব কে কিভাবে পালন করেছেন জানিনা। আশা করি বছরকে বরণ করতে কার্পণ্য করেননি। বর্ষবরণের আনন্দ সবার মাঝে বিলিয়ে দিতে পেরেছেন। আর আমার মত যারা বাসায় বসে ঘুমিয়েছেন তাদের বলছি ‘ঘুমটা ভালো হয়েছে তো’?

আমার সকালটা দারুণ ভাবে শুরু হয়েছিল। চিড়া, দই, কলা আর মিষ্টি দিয়ে বানান জলখাবার টা ভালই ছিল। ইচ্ছে ছিল নিজের ইউনিভার্সিটি নর্থ সাউথ এর দিকে যাব। এরপর একটা বিয়ের দাওয়াতে অংশগ্রহণ করে বন্ধুদের সাথে ঢাকা ইউনিভার্সিটিতে যাব। কিন্তু পরে আর কোথাও যাওয়া হল না। বিকালে বের হওয়ার চিন্তা করছি আর তখনই এক ফুফাতো ভাই তার পুরো পরিবার নিয়ে হাজির। তাদের সাথে আড্ডা দিতে দিতে বের হওয়ার কথা মনে ছিল না। পহেলা বৈশাখে বের হতে পারিনি বলে একটু খারাপ লাগছে। ব্যাপার না! আমি বরণ করার অনুষ্ঠানে না গেলও ঘরে বসেই বরণ করে নিয়েছি বৈশাখকে। আর আমি বরণ না করলেই বা কি? আমি বরণ করি বা না করি আজকে বৈশাখের শুরু।

যাই হোক আশা করি নতুন বছর সবার জন্য শুভ হবে। সবার জন্য বয়ে আনবে হাসি আর আনন্দ। বয়ে আনবে সমৃদ্ধি আর সুসংবাদ। শুভ নববর্ষ!!!

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: